শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৫৯ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
“পহেলা বৈশাখ ও সাম্প্রদায়িক বিতর্ক “ ঈশ্বরদীর নওদাপাড়ায় ৪র্থ বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ঈদের শুভেচ্ছা জানালো রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি সহস্রাধিক সাইটেশনের মাইলফলক স্পর্শ করলেন রবীন্দ্র উপাচার্য  ইদের পরেই বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি হবে: শেখ ইনান প্রথম বর্ষে ভর্তিপরীক্ষা বিষয়ে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত মৌলবাদ জঙ্গিবাদ মূলোৎপাটন ও বুয়েটে ছাত্র রাজনীতির দাবিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের মানববন্ধন নোবিপ্রবির সঙ্গে যুক্তরাজ্যের নটিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর যবিপ্রবিতে পিএইচডি সেমিনার ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে সুশাসনের নিমিত্ত অংশীজনের সভা অনুষ্ঠিত  যশোরে সমরাস্ত্র প্রদর্শনীতে যবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা সবুজ বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে তরুণদের ‘মিশন গ্রিন বাংলাদেশ’ ডিআইইউ’র ১০ শিক্ষার্থী বহিষ্কারের প্রতিবাদে নোবিপ্রবিতে মানববন্ধন  স্বাধীনতা দিবসে ইবির খালেদা জিয়া হলে আলোচনা সভা ও দোয়া   রবির কুড়িগ্রাম জেলা শিক্ষার্থী কল্যাণ সমিতির দায়িত্বে জ্বীম-মনির নানা আনুষ্ঠানিকতায় যবিপ্রবিতে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত রবির বগুড়া জেলা শিক্ষার্থী কল্যাণ সমিতির দায়িত্বে সোয়েব-সমুদ্র রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন  স্বাধীনতাকে নিয়ে ববি শিক্ষার্থীদের ভাবনা রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগার্ডকে স্থানীয় যুবকের মারধর  ববিতে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত চকরিয়ার মালুমঘাটে ইফতারের পূর্বে যুবককে তুলে নিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা যবিপ্রবির তীর্থ কর্তৃক আয়োজিত ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়া এসোসিয়েশনের দোয়া মাহফিল ও বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত  হকৃবিতে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করলেন ডা. রয়েল

একের পর এক কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় আমেরিকা জুড়ে বিক্ষোভ,সমালোচনার মুখে ট্রাম্প প্রশাসন

নুসরাত জাহান, বিশ্বখবর ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৭ জুন, ২০২০
  • ৪৮৪ ০০০ বার

একের পর এক কৃষ্ণাঙ্গ হত্যায় এখন প্রতিবাদের ঝড় বইছে আমেরিকা জুড়ে,সমালোচনার মুখে পরেছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও তার নিয়ন্ত্রণাধীন প্রশাসন।বিশ্বের ক্ষমতাধর রাষ্ট্র হিসেবে পরিচিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজপথে কৃষ্ণাঙ্গ হত্যা কোন নতুন বিষয় নয়।তবে এবারের হত্যাকাণ্ডটি মার্কিন শাসন ব্যবস্থাকে নাড়িয়ে দিয়েছে।মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গদের বিরুদ্ধে বর্ণ বৈষম্য এবং সহিংসতা দেশটির জন্মলগ্ন থেকেই চলে আসছে। এই পুরো সময়টাতে কৃষ্ণাঙ্গরা তাদের অধিকার আদায়ের জন্য বিভিন্ন সময় প্রতিবাদে রাজপথে নেমেছে।তবে কোন ক্ষেত্রেই ফলাফল লাভজনক হয় নি। বরং বারবার পুলিশি নির্যাতনসহ বিচিত্র বৈষম্যের শিকার হয়েছে তারা।

২০১৪ সালে এরিক গার্নার নামের এক কৃষ্ণাঙ্গকে হত্যা করা হয়েছিল।কিন্ত এখন পর্যন্ত সেই হত্যার বিচার সম্ভব হয়নি। এমন অসংখ্য হত্যাকাণ্ডের ফাইলে ধুলা জমেছে।
গত ২৫ মে আমেরিকার মিনিসোটা অঙ্গরাজ্যের মিনিয়াপোলিস শহরে ড্রেক শোয়িন নামে এক পুলিশ কর্মকর্তা জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গের ঘাড়ে ৮ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড হাটু চেপে রেখে নির্মম ভাবে হত্যা করে।

এদিকে এই হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ফেটে পড়েছে গোটা আমেরিকা। কৃষ্ণাঙ্গদের পাশাপাশি প্রতিবাদে যোগ দিয়েছে অসংখ্য শ্বেতাঙ্গ। ২৯ মে ড্রেক শোয়িন নামে সেই পুলিশকে নামমাত্র গ্রেফতার করা হলেও মাত্র ৫০০ ডলার মুচলেকায় তার জামিন মঞ্জুর হয়েছে।এরপর থেকেই মার্কিন জনতা নানা ধরনের মিছিল ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করে আসছে।

তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বেশ কড়া ভাবেই এই বিক্ষোভ পরিস্থিতি সামাল দিতে চেয়ে প্রায় ৪০ টি অঙ্গরাজ্যে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন ও জনগণের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন। এমনকি বিক্ষোভকারীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের সময়ে হওয়া ক্ষয়ক্ষতির জন্য বিক্ষোভকারীদের দ্বায়ী করে,তাদের কঠোর ভাবে দমনের পরিকল্পনা করে আমেরিকার বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের মেয়র ও গভর্নরদের নির্দেশ দিয়েছেন।ন্যাশনাল গার্ডকেও বিক্ষোভ কঠিনভাবে দমনের জন্য বলেছেন ট্রাম্প। বিক্ষোভকারীদেরকে সম্পদ বিনষ্টকারী বলে আখ্যা দিয়ে দীর্ঘ মেয়াদে আটকে রাখার নির্দেশ জারি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

আজকের আধুনিক বিশ্বে বর্ণবাদের মত কুৎসিত বৈষম্য কাম্য নয় বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।তারা আরো মনে করছেন,একটি দেশের প্রেসিডেন্টের উচিত বিভিন্ন মত ও পথের মাঝে ঐক্য প্রতিষ্ঠার দিকে লক্ষ্য দেওয়া।ট্রাম্পের এই বর্ণবাদী চিন্তার ফলে আজ গোটা আমেরিকা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।বিশ্বদরবারে মার্কিন শাসন ব্যবস্থা নিয়ে উঠছে নানা প্রশ্ন।অনাগত দিনে ট্রাম্প প্রশাসন কিভাবে সমালোচনাকে কাটিয়ে উঠে পরিস্থিতি আয়ত্তে আনবেন তা নিয়ে রয়েছে নানা সংশয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..