মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৩৫ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
পাবিপ্রবিতে বাংলা বিভাগের আয়োজনে সাংস্কৃতিক সপ্তাহ ও বিজয় উৎসব শুরু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক চকরিয়ার সালমান সাদিক কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী দিবস পালিত জামিনে মুক্ত হওয়ার পর ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত জিয়া উদ্দিন বাবুলু ভেড়ামারা অনলাইন প্রেসক্লাবের সাথে ওসি’র মতবিনিময় ভেড়ামারায় নবাগত ওসি রফিকুল ইসলামের যোগদান সোহরাওয়ার্দী কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন নোয়াখালীর রবি আলম পাবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের নবনির্বাচিত সভাপতির বর্ন্যাঢ বরণ প্রধানমন্ত্রীর কক্সবাজার আগমন উপলক্ষে চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন চকরিয়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে হাতি “সৈকত বাহাদুরের” মৃত্যু বেনাপোলে মদ গাঁজা ফেনসিডিলসহ আটক ৩ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হলেন পাবিপ্রবির সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সাব্বির আহমেদ হারিয়েছে চকরিয়ায় টিভিএসের নতুন শোরুম উদ্বোধন চকরিয়া সিটি হাসপাতালে ঠোঁটকাটা ও তালুকাটা রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদান কার্যক্রম সম্পন্ন বশেমুরবিপ্রবিতে ব্রাজিল সমর্থকদের আনন্দ মিছিল নিয়মবহির্ভূত নির্বাচনের তারিখ দেয়ার অভিযোগ কুবি শিক্ষক সমিতির বিরুদ্ধে আইন ভঙ্গ;বশেমুরবিপ্রবিতে উপাচার্যসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টের রুল জারি পাবিপ্রবিতে জেলা রোভারমেট ওয়ার্কশপ অনুষ্ঠিত ভেড়ামারা থানায় নবাগত ওসি (তদন্ত) মোঃ আকিব এর যোগদান এপেক্স ক্লাব চকরিয়া সিটির প্রেসিডেন্ট মহসিন ও রিয়ান সেক্রেটারি নির্বাচিত পাবনায় উত্তরবঙ্গ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ইউজিসির নিয়োগ ও পদোন্নতি-সংক্রান্ত নির্দেশিকার সংশোধনের দাবিতে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষকবৃন্দের মানববন্ধন ভেড়ামারা থানা পুলিশের সহায়তায় মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা পেলেন এক মহিলা

মানসিক সুস্থতায় করণীয়

জিনাতুল জাহরা ঐশী
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১০ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪০৭ ০০০ বার

মানসিক সুস্থতায় করণীয়

ডিপ্রেশন, হতাশা, অবসাদগ্রস্থতা এখন ব্যক্তি জীবনে বেশ পরিচিত কিছু শব্দ। এগুলো খুব সাধারণ মনে হলেও স্থবির করে দেয় জনজীবন। কেননা আপনি যখন মানসিকভাবে স্থির থাকবেন না তখন আপনি কোন কাজে সঠিকভাবে মনোনিবেশ করতে পারবেন না। ফলশ্রুতিতে আপনি আরও হতাশ হয়ে পড়বেন, নিজের মনোবল হারাবেন।
কখনো কি ভেবে দেখেছেন এই অবস্থার পিছনে দায়ী কারণ কি?
অনেকগুলো কারণ এর পিছনে কাজ করে থাকে যা ব্যক্তিভেদে ভিন্ন হয়। তবে আপনার লাইফস্টাইল কেমন তার উপর অনেকাংশেই নির্ভর করছে আপনার মানসিক স্বাস্থ্য। আপনি যদি অনিয়মিত ভাবে জীবনযাপন করে থাকেন তবে সেটা একসময় আপনাকে করে তুলবে হতাশাগ্রস্থ। এ থেকে বাঁচতে মেনে চলুন নিম্নোক্ত বিষয়গুলো –
১। পর্যাপ্ত ঘুমের অভ্যাস করুন। যতই ব্যস্ততা থাকুক না কেন, ঘুমের সাথে কোনরকম আপোষ করবেন না। দৈনিক ৬-৮ ঘন্টার ঘুম নিশ্চিত করুন।
২। খাদ্যাভাসের ব্যাপারে সচেতন হোন। সঠিক সময়ে খাবার গ্রহণের অভ্যাস করুন।
৩। প্রতিদিন অন্তত ৩০ মিনিট হাঁটা বা হালকা ব্যায়ামের অভ্যাস গড়ে তুলুন।
৪। যতটা সম্ভব চাপমুক্ত থাকার চেষ্টা করুন।
৫। প্রতিদিন নিজেকে জন্য কিছু সময় দিন। এ সময় সকল কাজকে পাশে রেখে এমন কিছু করুন যা আপনাকে মানসিক প্রশান্তি দিবে।
৬। যেকোন সমস্যা নিয়ে কাছের মানুষের সাথে আলোচনা করুন।

এ তো গেলো জীবনযাপনের ধরন। কিন্তু আপনি জানলে অবাক হবেন যে আপনার দৈনন্দিন খাদ্যাভ্যাস আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের উপর বেশ জোরালোভাবে প্রভাব বিস্তার করে। আপনি কি খাচ্ছেন না খাচ্ছেন তা শুধু আপনাকে শারীরিক ভাবে সুস্থ রাখে তাই নয়, আপনাকে মানসিক ভাবে স্থির রাখতেও কার্যকরী। আমরা যে খাবারগুলো গ্রহণ করে থাকি সেগুলো থেকে আমরা বেশ কিছু পুষ্টি উপাদান পেয়ে থাকি। এ উপাদানগুলো আমাদের সচল রাখতে কার্যকরী। এদের মধ্যে কিছু উপাদান সরাসরি আমাদের মানসিক স্বাস্থ্যের সাথে সম্পৃক্ত।
যেমন – ভিটামিন বি১ এর অভাবে দেখা যায় মনোযোগের অভাব। ফলে আপনার কাজ মনমতো হবে না এবং আপনি হয়ে উঠবেন হতাশাগ্রস্ত।
আবার ভিটামিন বি৫ এর অভাবে আপনি হয়ে উঠবেন চাপযুক্ত, এমনকি আপনার স্মরণশক্তিতেও এর প্রভাব দেখা যাবে।
একই ভাবে ভিটামিন বি১২ আপনার মনে তৈরি করবে বিভ্রান্তি। আর যখনই আপনি কোন ব্যপারে বিভ্রান্ত হবেন তখনই আপনি নিজের অজান্তেই চাপ নিতে থাকবেন, হয়ে উঠবেন হতাশাগ্রস্ত।
ঠিক একই ভাবে ফলিক এসিড, জিংক এর অভাব দেখা দিলে আপনার মনে দেখা দিবে উদ্বেগ, হতাশা। হঠাৎ হঠাৎ মনে হবে আপনার মাথাটা যেনো একদম খালি হয়ে গিয়েছে, কোন কিছু চিন্তার শক্তি যেনো নিঃশেষ হয়ে গিয়েছে। সাথে দেখা দিবে ক্ষুধামন্দা ও কাজের প্রতি হয়ে পড়বেন অনুৎসাহী।
দেখছেন তো, পুষ্টি উপাদান আপনাকে মানসিক ভাবে স্থির ও প্রফুল্ল রাখতে কতটা প্রয়োজন? আর এ উপাদানগুলোর প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে আপনার খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে প্রচুর পরিমাণে গাঢ় সবুজ ও রঙিন শাকসবজি, ফল- বিশেষত টকজাতীয় ফল, গোটা শস্য। সাথে রাখবেন দুগ্ধ্যজাতীয় খাবার, বাদাম ও বীচি জাতীয় খাবার। আর হ্যাঁ, মাছ খেতে কিন্তু ভুলবেন না। অর্থাৎ, সুষম খাদ্য গ্রহণ আপনাকে রাখবে সজীব ও প্রাণবন্ত।
মানসিক সুস্থতার ব্যাপারটা আমরা অনেক সময়ই অবহেলা করি। কিন্তু ভুলে যাই যে এ মানসিক সুস্থতা আমাদের দৈনন্দিন জীবনকে নানাভাবে প্রভাবিত করে। তাই আর অবহেলা না করে একে গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করুন।

লেখক –
জিনাতুল জাহরা ঐশী
খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান বিভাগ
গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ,
আজিমপুর, ঢাকা।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..