শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:৩৭ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
নাটোর প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত নেতৃবৃন্দের সংবর্ধনা নোবিপ্রবিতে দাবা ক্লাবের যাত্রা। ডিআইইউতে ফার্মেসি ক্লাবের সভাপতি ইলিয়াস, সম্পাদক মেহেদী বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির নেতৃত্বে আবারও কামরুজ্জামান-সালেহ কে নেবে কার দায়! কে দিবে কার দায়! এ দুয়ের দোলাচলে অনেকেই হারিয়ে যায় ফরিদপুরে গড়াই নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন প্রশাসন নির্বিকার সন্ধ্যার পর ফোন দেয়া যাবে না বশেমুরবিপ্রবি প্রক্টরকে! শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে নোবিপ্রবিতে মানববন্ধন শাবিতে হামলার প্রতিবাদে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সংহতি সমাবেশ  লালপুর ডিগ্রি কলেজের প্রধান ফটক ও সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন   বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি নির্বাচনে সভাপতিসহ ৫ পদে বিনাপ্রতিদ্বন্দীতায় জয়ী  পেকুয়া ইউনিয়ন ভূমি অফিস যেন ঘুষের আখড়া! নোবিপ্রবিতে মেশিন ইন্টেলিজেন্স’র উপর আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সেপ্টেম্বরে পাবিপ্রবি’কে অ্যাম্বুলেন্স উপহার দিলো ভারত সরকার! চকরিয়ায় সৌদিয়া বাসের সাথে ট্রাকের সংঘর্ষে চালক নিহত, আহত-১০ বিয়ের অনুষ্ঠানে নারীর সাজ মোবাইল গেমস বানালো বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থী বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির নির্বাচন ১৯ জানুয়ারি ভেড়ামারায় বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মাধ্যমে বিজয়ের পূর্ণতা ভেড়ামারায় সিসিটিভি ক্যামেরা চুরির ১ মাসেও চোর সনাক্ত হয়নি! ছাত্রলীগের ৭৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে হাবিপ্রবি ছাত্রলীগের স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি পবিপ্রবি রোভার স্কাউটের সমুদ্র সৈকতের পরিবেশ রক্ষা কর্মসূচি বাস্তবায়ন  শার্শায় অসহায় ও দুঃস্থ পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ করেন যুবলীগ নেতা নাজমুল পানছড়ির ৫ ইউপিতে নৌকার মনোনয়ন পেলেন যারা

কোভিড-১৯ সমাচার

জিনাতুল জাহরা ঐশী, স্বাস্থ্য ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ১৯৫ ০০০ বার
ফাইল ছবি

কোভিড – ১৯ বা করোনাভাইরাস সংক্রমণ; বর্তমানে বহুল আলোচিত একটি বিষয়। এটি যেমন আলোচিত তেমনই উদ্বেগের ঘটনা। 

কী এই করোনাভাইরাস? কীভাবে এটি এমন প্রাণঘাতী ভুমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে? আর এ থেকে পরিত্রাণের উপায়ই বা কী? এমন কতশত প্রশ্ন রাত-দিন ঘুরপাক খাচ্ছে আমাদের মনে। 

এই প্রশ্নগুলোয় একটু আলোকপাত করার চেষ্টা করছি। চলুন প্রথমেই জেনে নেই এই করোনাভাইস সম্পর্কে। 

করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ কী? 

করোনা শব্দটি ল্যাটিন শব্দ থেকে এসেছে যার অর্থ মুকুট। অণুবীক্ষণ যন্ত্রে এ ভাইরাসটিকে দেখলে মনে হয় যেন মুকুট পরিহিত কোন বস্তু, তাই এমন নামকরণ। এ গোত্রীয় ভাইরাস একটি সাধারণ প্রকৃতির ভাইরাস যা আমাদের আশেপাশেই থাকে এবং স্তন্যপায়ী প্রাণি দেহে সংক্রমণ ঘটায়। আরও স্পষ্ট করে বললে প্রাণির শ্বসনতন্ত্রে আক্রমণ করে যার ফলে সর্দি, কাশি, নিউমোনিয়ার মতন নানান সমস্যার সূত্রপাত ঘটে। এখন নিশ্চয়ই প্রশ্ন উদয় হচ্ছে যে এই ভাইরাসটি যদি সাধারণই হতো তবে কেন এর সংক্রমণে জীবননাশের ঘটনা ঘটছে। সম্প্রতি করোনাভাইরাস গোত্রের যে ভাইরাসের সংক্রমণ বিশ্বজুড়ে দেখা দিচ্ছে সেটি অতি দ্রুত সংক্রমিত হয় এবং যাদের দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দূর্বল তাদের মারাত্মক ক্ষতি সাধন করে এমনকি মৃত্যু ঘটায়।

করোনাভাইরাস কীভাবে ছড়ায়? 

করোনাভাইরাস নিয়ে তো জানা গেলো। আসুন এবার দৃষ্টি দেই এটি কীভাবে ছড়ায় তার উপর। করোনাভাইরাস সংক্রমণের পর এর উপর করা বিভিন্ন গবেষণায় উঠে এসেছে যে এটি ড্রপলেটস এর মাধ্যমে ছড়ায়। সহজ ভাবে বললে আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি – কাশির মাধ্যমে ছড়ায়। ধরুন আক্রান্ত কোন ব্যক্তি হাঁচি দিল, তার হাঁচির মাধ্যমে এ ভাইরাস বায়ুতে থাকবে এবং এর কনাগুলো ভারী হওয়ায় তা কিছুক্ষন এর মধ্যে মাটিতে পড়ে যাবে। এখন আপনি যদি সেই ব্যক্তির নাগালের ভিতর অবস্থান করে থাকেন তবে এ ভাইরাস মাটিতে পড়ার আগেই আপনাকে সংক্রমিত করবে। আবার আপনি তার নাগালের ভিতরে নেই, কিন্তু ভাইরাসটি যেখানে পড়েছে আপনি সেদিক দিয়ে হেঁটে বেড়ালেন। তখন এ ভাইরাসটি আপনার জুতোর সাথে পায়ে পায়ে পৌছে যাবে আপনার ঘরে এবং সংক্রমিত করবে আপনাকে ও আপনার পরিবারকে। তাহলে এ ভাইরাসকে প্রতিহত করার উপায় কী? 

করোনাভাইরাস প্রতিহত করার উপায়ঃ 

আমরা জেনেছি যে করোনাভাইরাস বায়ু বা পানিবাহিত রোগ নয় বরং এটি ছড়ায় ড্রপলেট এর মাধ্যমে। তাই একে প্রতিহত করতে আপনাকে এই ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে হবে। ঠিক কোন কোন উপায়ে করোনাভাইরাসকে প্রতিহত করা যায় অর্থাৎ এটি থেকে সুস্থ থাকার উপায় নিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কিছু নিয়ম বাতলে দিয়েছে। সেগুলো আপনাদের সামনে তুলে ধরছি –

  • এ ভাইরাস কে প্রতিহত করার জন্য আপনাকে মানতে হবে শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব। অর্থাৎ সকল প্রকার জন সমাগম পরিহার করতে হবে, অন্যদের সাথে নিরাপদ দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। যেহেতু ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে প্রাথমিক অবস্থায় (আক্রান্ত হওয়ার ১৪ দিন পর্যন্ত) কোন উপসর্গ দেখা যায় না তাই যেকোন ব্যক্তি থেকে কমপক্ষে ১ মিটার দূরত্ব বজায় রাখুন।  
  • তাছাড়া যেহেতু ভাইরাসটি হাঁচি-কাশির মাধ্যমে ছড়ায় তাই আপনাকে মেনে চলতে হবে কিছু শিষ্টাচার। যেমনঃ হাঁচি দেবার সময় কনুই ব্যবহার করুন, ব্যবহৃত টিস্যু নির্ধারিত স্থানে ফেলুন, মাস্ক ও গ্লভস ব্যবহার করুন।
  • কিছু সময় পর পর সাবান দিয়ে হাত ধৌত করুন। হাতের কাছে সাবান পানি না থাকলে অ্যালকোহল যুক্ত স্যানিটাইজার বা হ্যান্ড রাব ব্যবহার করুন।
  • হাত ধোয়া না থাকলে নাকে মুখে হাত দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। 
  • অযথা ঘর থেকে বের হবেন না এবং ভ্রমণ হতে বিরত থাকুন। 
  • অসুস্থ বোধ করলে বা করোনাভাইরাসের কোন উপসর্গ দেখা দিলে বাসায় অবস্থান করুন এবং ডাক্তারের পরামর্শ গ্রহণ করুন।

এবার দেখে নেওয়া যাক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে কী কী উপসর্গ দেখা যায়।

করোনাভাইরাসের উপসর্গ –

সাধারণত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ১৪ দিনের মাঝে কোন উপসর্গ দেখা দেয় না কেননা এ ভাইরাসটির সুপ্তাবস্থা ১৪ দিন। সাধারণত আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে যে উপসর্গগুলো দেখা যায় তা নিম্নরূপ –

  • জ্বর
  • কাশি
  • গলা ব্যথা
  • শ্বাসকষ্ট
  • ডায়রিয়া
  • মাংসপেশীতে ব্যথা
  • মাথাব্যথা

আবার অনেকের মাঝেই আক্রান্ত হবার পরও কোন ধরনের উপসর্গ পরিলক্ষিত হয় না। তবে এতে ঘাবড়ানোর কিছু নেই। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেই যে মৃত্যু অবধারিত ব্যপারটি এমন নয়। আপনার সচেতনতাই পারে আপনাকে ও আপনার পরিবারকে সুস্থ ও সুরক্ষিত রাখতে। 

তাই বাসায় থাকুন, সচেতন থাকুন, সুস্থ থাকুন।

 

লেখক –
জিনাতুল জাহরা ঐশী
খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান বিভাগ
গার্হস্থ্য অর্থনীতি কলেজ,
আজিমপুর ঢাকা।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..