রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ০৫:৫৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
৬২০ দিন পর আগামীকাল খুলছে নোবিপ্রবি, উচ্ছ্বসিত শিক্ষার্থীরা পটুয়াখালীর দুমকীতে রাজিবের শোক সভা দোয়া মোনাজাত। কৃষি এবং কৃষিপ্রাধান্য বিশ্বিবদ্যালয়সমূহে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত পটুয়াখালীর দুমকীতে আগুনে পুড়ে দোকান ভষ্মিভুত।  দুমকীর বোর্ড অফিস বাজারের ব্যবসায়ীদের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত।  নোবিপ্রবি ডিবেটিং সোসাইটির চতুর্দশ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত। অসহায় স্বর্গ আচার্য্যের মানবিক সহায়তার আবেদন কেমন আছে ভুল চিকিৎসায় কোমায় থাকা বশেমুরবিপ্রবির সেই শিক্ষার্থী? জবিতে টিকার দ্বিতীয় ডোজ ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে নোবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা দুমকীতে উপজেলা পরিষদ মাসিক সভা একটি বাচ্চাকে বাঁচাতে অসহায় পরিবারের আকুতি গোপালগঞ্জে মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে নির্লজ্জ মিথ্যাচারের অভিযোগ কোন অপশক্তিই বিএমএসএফ’কে বিভক্ত করতে পারবেনা- সর্বোচ্চ পরিচালনা পর্ষদ মুবিপ মিটআপ ফটো কনটেস্ট ও উদ্যোক্তা কনটেস্ট পুরস্কার বিতরণী ২০২১ পেকুয়ায় ৪৫০০ পিচ ইয়াবাসহ দুই যুবক আটক  ক্লোন ক্যান্সার আক্রান্ত কুদ্দুছের আর্থিক সহযোগিতার আবেদন নোবিপ্রবিতে ভর্তিতে গুরুত্ব পাচ্ছে জিপিএ, ভর্তিচ্ছুদের ক্ষোভ চকরিয়ায় চার সন্তানের জননীকে কুপিয়ে হত্যা! বিএমএসএফ’র কেন্দ্রীয় কমিটি বিলুপ্ত; পাইলট আহবায়ক,জাফর সদস্য সচিব সিপিবি ফরিদপুর জেলা শাখার সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত পবিপ্রবিতে রোভার ও গার্ল-ইন রোভার স্কাউটদের দীক্ষা গ্রহন ভেড়ামারায় আ’লীগ নেতা জাকির হোসেন বুলবুলের উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক সহিষ্ণুতা দিবস পালন শেখ হাসিনা এবং সজীব ওয়াজেদ জয় কে ধন্যবাদ জানিয়ে পবিপ্রবি ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

ব্যাতিক্রমী সাংসদ কন্যা ডরিন

বাংলাদেশ সারাবেলা বিশেষ রিপোর্ট
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৭৭ ০০০ বার

আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই বিভিন্ন জনপ্রতিনিধিদের সন্তান ও আত্বীয়দের কারনে বারবার সমালোচনার মুখে পরতে হয়েছে সরকারকে।সর্বশেষ ঢাকার সাংসদ ও প্রভাবশালী আওয়ামীলীগ নেতা হাজী সেলিম পুত্রের কর্মকান্ডেও সমালোচনার আঘাত সহ্য করতে হয়েছে দল ও সরকারকে।তবে এতোকিছুর মধ্যেও ব্যাতিক্রমী এক সাংসদ কন্যা মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।ঝিনাইদহ-৪ আসনে ২০১৪ ও ২০১৮ সালে পরপর দু’বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীমের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।

ব্যাতিক্রমী সাংসদ কন্যা ডরিন,বাবার পাশাপাশি উন্নয়ন কর্মকান্ডে অংশ নিচ্ছেন নিয়মিত

বাবার নির্বাচনে অংশ নেয়ার পাশাপাশি স্থানীয় নির্বাচনেও আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন।দলীয় সকল কর্মকান্ডে অংশ নিয়ে ইতিমধ্যে কালীগঞ্জের আওয়ামীলীগ পরিবারের মন জয় করতে সক্ষম হয়েছেন ডরিন।
শুধু দলীয় নই,সামাজিক উন্নয়ন কর্মকান্ডেও রেখেছেন ভূমিকা। বিশেষত মহামারী করোনা পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষের পাশে এসে দাড়িয়ে ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছেন তিনি।

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকেই কাজ করে যাচ্ছেন সাংসদ কন্যা ডরিন।
করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় বাবার পাশাপাশি নিজ উদ্যোগে বহুমুখী মানবিক পদক্ষেপ নেন তিনি। করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা, অসহায় ও লকডাউনে থাকা পরিবারসমূহের খাবার সরবরাহ,রমজান মাসে ইফতারি বিতরণ, বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের মধ্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যদব্যদী পৌঁছে দেওয়া ও তাদের খোঁজ রাখছেন মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।


জানা যায়, করোনার শুরুতে নিজ উদ্দোগে এ ভাইরাস প্রতিরোধে জীবাণুনাশক সাবান ও মাস্ক বিতরণ করেন ডরিন। পরবর্তীতে এলাকার গরীব অসহায় দুঃস্থ খেটে খাওয়া পরিবারগুলোর মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন তিনি। খাদ্য সামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, ডাল, তেল, আলু, পিয়াজ সহ অন্যান্য। স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের দিয়ে টিমওয়ার্ক তৈরি করে সুষমভাবে প্রতিটি ইউনিয়ন ও পৌরসভা এলাকায় এসব খাদ্য সামগ্রী পৌছে দেন এই সাংসদ কন্যা।

গেল রমজানের ঈদে স্থানীয় অসচ্ছল ব্যাক্তি ও তাদের পরিবারের পাশেও দাঁড়িয়েছে এমপি কন্যা।

এই বিষয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন বলেন,” বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় বাবা প্রথম দিন থেকেই একের পর এক যুগান্তকারী সব কর্মসূচী নিয়ে মানুষের পাশে থেকেছেন। বাবার এমন কর্মকাণ্ডে আমি সবসময় গর্ববোধ করি। আমি বাবার পাশাপাশি এলাকার মানুষদের পাশে দাড়াতে পেরে ভালো লাগছে। মূলকথা অসহায়দের পাশে থাকার অনুপ্রেরণা পাই বাবার কাছ থেকেই। ওনার কাছ থেকেই মানুষের বিপদে পাশে দাড়াতে শিখেছি। আমি চাই আমার এই কার্যক্রম অব্যহত থাকুক। সবাই আমার পরিবার ও কালীগঞ্জবাসীর জন্য দোয়া করবেন।”

এদিকে করোনা ভাইরাসের কারনে অসহায় কৃষকদের দূর্দশা চরমে পৌছানোর আশঙ্কা ছিলো সকলেরই।কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ধান কাটা কার্যক্রমে অনেকটাই হতাশার মেঘ কেটে যায় সেই সময়ে। বিভিন্ন সংসদ সদস্যকেও এই ধান কাটা কার্যক্রমে দেখা গেলেও সাংসদ সন্তানদের দেখা পাওয়া যায়নি তেমন। তবে সেই সময় ঐ অবস্থার ইতি টেনে ঝিনাইদহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলায় সাংসদ কন্যায় তত্বাবধানে অসহায় কৃষকের ধান কেটে দেয় উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।সাংসদ কন্যা ডরিনের প্রত্যক্ষ তত্বাবধানে সেসময় অসহায় কৃষকদের ধান কাটে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।

এছাড়া বিভিন্ন সময়ে বৃক্ষরোপণ, শীতকালে অসহায় মানুষদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেও প্রশংসায় ভাসেন এই সাংসদ কন্যা।


সামাজিক ও উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে বাবা সাংসদ আনোয়ারুল আজীমের পাশে থেকে কাজ করে যাওয়ায় দল ও দলের বাইরে প্রশংসিত হচ্ছেন সাংসদ কন্যা মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন..

One response to “ব্যাতিক্রমী সাংসদ কন্যা ডরিন”

Leave a Reply to Faisal Khan Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..