শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৫:২৩ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ সদস্যকে সম্বর্ধনা ও নবাগত অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা কে বরণ পাবিপ্রবির অন্যতম স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন HOPE এর নেতৃত্বে সালমান,আফতাব। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় পূজা উদযাপন পরিষদ ও সেচ্ছাসেবকদের সাথে মত বিনিময় সভা প্রতিনিয়ত বাড়ছে দূর্ঘটনা, উদাসীন পৌর প্রশাসন ভেড়ামারা থানা বার্ষিক পরিদর্শন করলেন এসপি খাইরুল আলম ভেড়ামারা পৌর এলাকায় আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় সিসি টিভি ক্যামেরার শুভ উদ্বোধন ভেড়ামারা পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের আয়োজনে খাদ্য বিতরন করে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন পালন নিখোঁজের ১মাস পর কিশোরের বস্তাবন্দী খন্ডিত লাশ উদ্ধার ২৪ ঘণ্টায় একাধিক নিয়োগ বশেমুরবিপ্রবিতে; শিক্ষকদের কর্মবিরতিতে একটিতে পরিবর্তন ব্যক্তিস্বার্থ উদ্ধারে মাদ্রাসা সুপারের নামে মিথ্যাচার বশেমুরবিপ্রবি’তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপন শার্শা সীমান্তে ১২ ঘন্টার মধ্যে পৃথক ৩টি স্থান থেকে প্রচুর পরিমানে সোনা আটক চকরিয়া হস্তশিল্প নারী উদ্যোক্তা সংগঠনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন দুমকিতে দুর্বৃত্তের হাতে সাংবাদিক লাঞ্ছিত বশেমুরবিপ্রবির ভেটেরিনারি বিভাগে দুইদিন ব্যাপী সার্জিক্যাল কেস প্রাক্টিস আসামি গ্রেফতার না হওয়ায় আতঙ্কে নিহতের পরিবার প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় মীনা দিবস ২০২২ উদযাপন বেনাপোল সীমান্তে ইউএস ডলার সহ দুই যাত্রী আটক শার্শায় সাবেক ইউপি সদস্যের বসত বাড়ীতে দূর্বৃত্তের হামলা উৎসব মুখর পরিবেশে ডিএসটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন শার্শায় প্রেমিকের সাথে কিশোরী আটকের পর গণধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার ২ পটুয়াখালী জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মুরাদিয়ার হাসান শিকদার শার্শার গোগা সীমান্ত থেকে ১৫ পিস সোনার বারসহ পাচারকারী আটক বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রফেসর সিদ্দিকুর রহমানের শ্রদ্ধা

উপাচার্যের ইতিবাচকতায় অগ্রগামী বশেমুরবিপ্রবির বড় বাধা অভ্যন্তরীণ রাজনীতি

সমীরণ সাহা, বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ১৫৩ ০০০ বার

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে বঙ্গবন্ধুর জন্মস্থানেই প্রতিষ্ঠিত হয়ে দক্ষিণ বঙ্গের অন্যতম উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে শিক্ষা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। প্রতিষ্ঠার পর থেকেই নানা অনিয়ম – দুর্নীতিতে প্রতিনিয়ত সংবাদমাধ্যমের শিরোনামে এসেছে বিশ্ববিদ্যালয়টির নাম। অর্জনের থেকে যেনো নেতিবাচক সংবাদের শিরোনামেই জর্জরিত হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়টি। পূর্বের উপাচার্য অধ্যাপক খোন্দকার নাসিরুদ্দিন এর বিদায়বেলায় সীমাহীন দুর্নীতি আর অনিয়ম নিয়ে দেশব্যাপী সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠে বিশ্ববিদ্যালয়টি।এরপর গত বছরের ২ সেপ্টেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে নতুন উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান অধ্যাপক ড. একিউএম মাহবুব। নিয়োগ প্রাপ্তির পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত উন্নয়নে মনযোগ দিলেও এখনো রয়ে গেছে অপূর্ণতা।পূর্বে কয়েক বছর ধরে নতুন একাডেমিক ভবনের পাঁচটি তলার কাজ চললেও অধ্যাপক ড. একিউএম মাহবুবের এক বছরেই আরো পাঁচটি তলার কাজ প্রায় শেষের দিকে। পুরাতন একাডেমিক ভবনের সর্বশেষ তলা পর্যন্ত কাজ শেষের দিকে।বর্ধিত করণের কাজ চলছে কেন্দ্রীয় মসজিদের।কাজ শুরু হয়েছে বছরের পর বছর শুধুমাত্র ক্যালেন্ডারে দৃশ্যমান প্রধান ফটকের কাজও।তবে প্রধান ফটকের কাজ ধীরগতিতে চলায় অভিযোগও রয়েছে সংশ্লিষ্টদের বিষয়ে। অবকাঠামোগত উন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের আবাসিক সুবিধা ও শিক্ষা সুবিধাতেও ভূমিকা রেখেছিলেন নতুন উপাচার্য। আবাসিক হলে সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হয়েছে। গণরুমের পরিবর্তে রুমের ব্যবস্থাকরণ ও এক সিটে একজন শিক্ষার্থীকে রাখার ব্যবস্থাও করা হয়েছে। খুলনাগামী শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ভাড়া করা হয়েছে মওকুফ।অন্যদিকে শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার সুবিধার্থে অতিদ্রুত নতুন একাডেমিক ভবনের কাজ শেষ করে শ্রেণিকক্ষের সংকটের সমাধানও করেছেন।ইটিই বিভাগ, ইতিহাস বিভাগ ও আইসিটি ইন্সটিটিউট নিয়ে শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিনের আন্দোলন-দাবি শেষ হয়েছে উপাচার্যের হস্তক্ষেপে সমাধানের মাধ্যমে।তবে এখনো পড়াশুনার সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরেনি।মেডিকেল সেন্টার আধুনিকায়ন,শিক্ষার্থীদের সেমিস্টার ও ভর্তি ফি কমানো,বিভিন্ন হলের বেহাল অবস্থা,ক্যাফেটেরিয়া চালু,শিক্ষক স্বল্পতা,দ্রুত ইম্প্রুভমেন্ট চালু এবং লাইব্রেরিতে পড়াশুনার পরিবেশ নিয়ে বিস্তর অভিযোগ রয়েছে শিক্ষার্থীদের। যদিও সেমিস্টার ফি ও ভর্তি ফি নিয়ে শিক্ষার্থীদের সাথে আলোচনা করে এ বিষয়ে ইউজিসির সাথে আলোচনা চলছে।অন্যদিকে করোনাকালীন ক্ষতি পুষিয়ে নিতে শিক্ষার্থীদের সাথে মুক্ত আলোচনার ঘোষণা দিয়েছেন উপাচার্য ড. একিউএম মাহবুব।যা শিক্ষার্থীদের কাছে প্রশংসনীয় হয়ে উঠেছে। আবার শিক্ষক স্বল্পতার সমস্যা কাটাতে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তিও দেয়া হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে।তবে উপাচার্যের ইতিবাচক সিদ্ধান্তেও নেতিবাচকতা থেকে মুক্ত হতে পারছে না বিশ্ববিদ্যালয়টি। এর পেছনের কারণ হিসেবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা দেখছেন ‘অভ্যন্তরীন নোংরা রাজনীতি ‘।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী রাজনীতি প্রকট আকার ধারণ করেছে।শিক্ষক-কর্মকর্তা-শিক্ষার্থীবান্ধব অনেক সিদ্ধান্ত নিতে বিভিন্ন সময় শিক্ষক-কর্মকর্তাদের থেকেও বাধা আসছে। শিক্ষক-কর্মকর্তা-শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন বিষয়ে দ্বিধাবিভক্ত হতে দেখা গেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মকর্তাদের।এমন অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ ঠিক রেখে শিক্ষার্থীদের জন্য পড়াশুনার পরিবেশ তৈরি ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য উপাচার্যের ইতিবাচক সিদ্ধান্ত ও কর্মকান্ডের পাশাপাশি অভ্যন্তরীণ রাজনীতি, দলাদলি ও দ্বন্দ্বের অবসান হওয়া উচিত বলে মনে করছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।
এ বিষয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী মাহবুবুল আলম মানিক বলেন, “করোনাকালীন অনলাইন পরীক্ষা, শিক্ষক-কর্মকর্তাদের আপগ্রেডেশন নিয়ে যে জটিলতা-বিভক্তি দেখেছি,তা আমাদের শিক্ষা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে চালানোর অন্তরায়।”

এদিকে এই বিভক্তি ও দলাদলি নিয়ে শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. মোঃ আবু সালেহ বলেন , “এ জাতীয় বিভক্তি মাননীয় উপাচার্যের নেতৃত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের অগ্রযাত্রাকে বাধাগ্রস্ত করবে। বিশেষ করে শিক্ষকদের ঐক্যবদ্ধের প্রয়োজন রয়েছে। বিশেষ করে শিক্ষার্থীবান্ধব সিদ্ধান্ত গ্রহণের সময় আমাদের সাহায্য করা উচিত। যারা বাধা দিতে চায়,তারা বিশ্ববিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করতে চায়।যা একেবারেই কাম্য নয়।”

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..