মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
পাবনা ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার উদ্যোগে দাখিল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কৃতি ছাত্রদের সম্বর্ধনা অনুষ্ঠিত পাবনায় পানিতে ডুবে ১২ বছরের কিশোরের মৃত্যু রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ফটোগ্রাফি সোসাইটির নতুন কমিটি গঠন  দুর্নীতি প্রতিরোধ বিষয়ক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন কয়রাবাড়ী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়  পাবনায় প্রথমবারের মত আয়োজিত হতে যাচ্ছে ক্যাট শো প্রতিযোগিতা ঈশ্বরদীতে বুড়িমারী এক্সপ্রেস ট্রেন লাইনচ্যুত; তদন্ত কমিটি গঠন হায়দারপুরে এক রাতে ১৫ টি গরু চুরি জামিনে মুক্তি পেলেন সাবেক সহকারী প্রক্টর দ্বীন ইসলাম রবীন্দ্র জয়ন্তীর কেন্দ্রীয় কর্মসূচিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অংশগ্রহণ রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনোভেশন প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত নোবিপ্রবি সায়েন্স ক্লাবের নেতৃত্বে দেওয়ান—শাওন ব্যাগ ভর্তি টাকা সহ সুজানগর উপজেলা নির্বাচনের চেয়ারম্যান প্রার্থী আটক কক্সবাজার জেলায় ১০ম বারের মতো শ্রেষ্ঠ ওয়ারেন্ট তামিলকারি অফিসার মহসিন, শ্রেষ্ঠ অস্ত্র উদ্ধারকারী সোলায়মান যবিপ্রবিতে দুই দিনব্যাপী শুরু হতে যাচ্ছে বৈশাখী মেলা ও লোকসংস্কৃতি উৎসব চকরিয়ার হারবাংয়ে হাতি মারার বৈদ্যুতিক ফাঁদে জড়িয়ে কৃষকের মৃত্যু শহীদ এম মনসুর আলী কলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্সিপাল আর নেই আটঘরিয়া উপজেলা নির্বাচন ২৯ মে, চেয়ারম্যান পদে লড়বেন ৩ জন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে দৈনিক সমকালে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে  শিক্ষক সমিতির প্রতিবাদ বর্ণাঢ্য আয়োজনে হকৃবিতে প্রথম ‘বিশ্ব ভেটেরিনারি দিবস-২০২৪ উদযাপিত চকরিয়ায় জেলের ছদ্মবেশে অভিযান; ১২ লাখ ৫০ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ আটঘরিয়ায় ৩ কৃষকের বাড়িতে অগ্নিকাণ্ডে ১৫ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ভস্মীভূত বাউরেসের কৃষি সাংবাদিকতা পুরস্কার পেলেন আবুল বাশার মিরাজ গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা আয়োজনে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বয় সভা আটঘরিয়ার একাডেমিক সুপারভাইজারের বিদায় সংবর্ধনা চকরিয়ায় মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে গণ-ডাকাতি, গুলি বিনিময়, পুলিশসহ গুলিবিদ্ধ ২

কতটা যৌক্তিক?

নুসরাত মিলি
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২ জুন, ২০২০
  • ৬০৫ ০০০ বার

কতটা যৌক্তিক??
প্রতিদিন সকালে আড়মোড়া ভেঙে কোনরকমে ফ্রেশ হয়ে দৌড়, উদ্দেশ্য সকালের প্রথম পিরিয়ড এর ক্লাস ধরা। ঠিক এরকমই রুটিনে শুরু হয় ম্যাক্সিমাম বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীর প্রতিটি সকাল। এরপর সারাদিন ক্লাস, ল্যাব, মিড এক্সাম, আড্ডা, ঘোরাঘুরি, টঙের চা, ক্যান্টিনের খাবার, ক্যাফেটেরিয়ার চা কফি, তারপর সন্ধ্যা হলে ফেরা। এরকমই জীবন ধারায় অভ্যস্ত হয়ে যাওয়া আমাদের জীবন যেন হঠাৎ থমকে গিয়েছে এক ধাক্কায়। আজ ৩ মাস এর মত সময় ধরে বাসায়। জীবনে যেন এসেছে আমুল পরিবর্তন। কে কিভাবে নিচ্ছে এই পরিবর্তন সেটা জানতেই আমরা বাংলাদেশ সারাবেলার শিক্ষাঙ্গন প্রতিনিধি বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় এর শিক্ষার্থীদের সোস্যাল মিডিয়ার স্ট্যাটাস জরিপ করেছি। মিশ্র প্রতিক্রিয়া তাদের মধ্যে কেউ ইনজয় করছে আবার কারো জীবন বিপন্ন। আসলে একটা পরিবর্তনককে কে কতটা গঠনমূলক ভাবে নিতে পারে সেটাই শেখানো উচিত ছিল প্রতিটি শিক্ষার্থীদের। আমার কাছে ব্যাপারটা অস্বাভাবিক লেগেছে কতটা বেপরোয়া জীবনে আমরা অভ্যস্ত হয়েছি যে আজ ৩ মাস আমাদের নিজেদের সুরক্ষার জন্য ঘরে থাকাটাই আমাদের কে এভাবে ভাবতে বাধ্য করছে যে, মুক্তভাবে ৬ দিন বাচা বন্দী ৬ মাসের চেয়ে শ্রেয়।
বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস খুলে দেওয়ার যে সিদ্ধান্ত প্রশাসন নিয়েছে সেটা কতটা যৌক্তিক আমার জানা নেই তবে মনে হয় এতে করে আমাদের জীবন বিপন্ন হওয়ার সম্মূখ আশংকা রাখে। আপনাদের কাছে প্রশ্ন, এই যুদ্ধ যদি দৃশ্যমান কোন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে হত তখনই কি আপনারা সার্টিফিকেট, ডিগ্রী চাকরির বয়স শেষ এগুলো নিয়ে ভাবতেন? আমাদের মুক্তিযুদ্ধ, কিংবা বিশ্বযুদ্ধ ১;২ এও কি ভেবেছিল? এই প্রতিপক্ষ ও তো দৃশ্যমান প্রতিপক্ষের চেয়ে কম শক্তিধর নয়, তবে কেন আমরা জাতির সূর্যসারথিরা এই প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে গঠনমূলকভাবে প্রতিরোধ না গড়ে ব্যক্তিস্বার্থ নিয়ে ভাবছি? ভেবে দেখুন ভাবার সময় এসেছে।

 

লেখাঃ নুসরাত মিলি, শিক্ষার্থী, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়।    

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..