শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
ডিআইইউতে গবেষণা বিষয়ক সেমিনার বড়াইগ্রামে ট্রাক মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ দুইজন নিহত কাঁচাবাজারের সরকারি জমি দখল উপজেলা প্রশাসনের, বিপাকে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা শার্শার বাগআঁচড়ায় সন্ত্রাসী হামলার অভিযোগ। আহত-১ দুমকীতে গভীর রাতে হাত পা বেঁধে ফিল্মি স্টাইলে ডাকাতি! জিপিএ পদ্ধতি বাতিলের দাবি শিক্ষার্থীদের থট অফ রমাদানের ব্যতিক্রম আয়োজন ” বিবেক দংশন ” – নাজমুল হুদা শিথিল। শার্শার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গনি’র মুত্যু, দাফন সম্পন্ন। কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা দিলো কাকিনা স্টুডেন্টস ফোরাম চকরিয়ায় সড়ক দূর্ঘটনায় স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যু নাটোরে চাঞ্চল্যকর কৃষক হত্যার খুনীদের ফাঁসির দাবি বড়াইগ্রাম-বনপাড়া পৃথক উপজেলা গঠণের লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা মেহেদীর জন্য সাহায্যের হাত বাড়ান দুমকীতে ছাত্রলীগের উদ্যোগে গরিব অসহায় মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ। ভেড়ামারায় ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ হস্তান্তর পাবিপ্রবিতে বঙ্গবন্ধু হল ছাত্রলীগের সেক্রেটারি মেহেদী হাসান রেইনের ইফতার বিতরণ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের নিয়ে চিকিৎসা বোর্ড গঠন করেও বাঁচানো গেলো না সিংহী নদীকে নাটোরের মেয়ে সুমাইয়া সহকারী জজ নিয়োগ পরীক্ষায় দেশ সেরা নজরুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিল্ম এন্ড মিডিয়া স্টাডিজ বিভাগে বঙ্গবন্ধু কর্নার উদ্বোধন নোবিপ্রবি উপাচার্যকে নিয়ে বিভ্রান্তিকর সংবাদ; বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রতিবাদ চকরিয়ায় ১০ হাজার পিস ইয়াবাসহ যুবক আটক পাবিপ্রবিতে রসায়ন পরিবারের ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন। দুমকীতে আইসক্রিমের লোভ দেখিয়ে শিশু বলাৎকারের অভিযোগ! নোবিপ্রবিতে STEM ED ক্লাবের কমিটি ঘোষণা 

কুয়াকাটায় মানবেতর জীবনযাপন করছে ব্যবসায়ীরা

সুরুজ খান শুভ, কুয়াকাটা প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৬ জুন, ২০২১
  • ১১৪ ০০০ বার

বাংলাদেশের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র পটুয়াখালী কুয়াকাটা (সাগরকন্যা)। ২০২০ সালের ১৮ মার্চ করোনা ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশের লকডাউন ঘোষণা করা হয়। সাথে সাথে সব শিল্প-কারখানা বন্ধ রাখা। যদিও তারপরে আবারো শিল্প-কারখানা সচল রাখা হয়। কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ধাপ শুরু হ‍ওয়ার সাথে সাথে আবারো বন্ধ হয়ে যায় শিল্পকারখানা ও পর্যটন কেন্দ্রগুলো।সেই সাথে মানবতার জীবনযাপন করছে এসব পর্যটন কেন্দ্রের হাজার হাজার ব্যবসায়ী।দীর্ঘদিন যাবৎ পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ রয়েছে। ফলে এখানকার অর্থনৈতিক অবস্থা দিনে দিনে অবনতির দিকে যাচ্ছে।

দ্বিতীয় ধাপে করোনার আক্রমণের শুরুতে কুয়াকাটা পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ হয়ে যায়। দুই শতাধিক আবাসিক হোটেল ও দোকান বন্ধ রয়েছে।
কুয়াকাটায় হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থান। কিন্তু পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ থাকার কারণে তাদের মানবেতর জীবন-যাপন করতে হচ্ছে। স্থানীয় ব্যবসায়ীদের দাবি যত দ্রুত সম্ভব কুয়াকাটা পর্যটন শিল্প স্বাস্থ্যবিধি মেনে খুলে দেওয়া হোক ।
বর্তমানে হোটেল ব্যবসায়ীসহ ক্যামেরাম্যান, স্থানীয় দোকানপাট বন্ধ থাকায় সংশ্লিষ্ট সবার অর্থনৈতিক অবস্থা খারাপ এবং মানবেতর জীবন যাপন করছে। তাদের দাবি যে কোনভাবে কুয়াকাটা পর্যটন শিল্প খুলে দেওয়া হোক।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..