শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৪৭ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
পাবলিক ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন অব ঝিনাইগাতী’র সভাপতি নাজমুল, সম্পাদক জিম পাথেয় এর সভাপতি মামুন, সম্পাদক শারীফুল ইসলাম “পহেলা বৈশাখ ও সাম্প্রদায়িক বিতর্ক “ ঈশ্বরদীর নওদাপাড়ায় ৪র্থ বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ঈদের শুভেচ্ছা জানালো রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি সহস্রাধিক সাইটেশনের মাইলফলক স্পর্শ করলেন রবীন্দ্র উপাচার্য  ইদের পরেই বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি হবে: শেখ ইনান প্রথম বর্ষে ভর্তিপরীক্ষা বিষয়ে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত মৌলবাদ জঙ্গিবাদ মূলোৎপাটন ও বুয়েটে ছাত্র রাজনীতির দাবিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের মানববন্ধন নোবিপ্রবির সঙ্গে যুক্তরাজ্যের নটিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর যবিপ্রবিতে পিএইচডি সেমিনার ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে সুশাসনের নিমিত্ত অংশীজনের সভা অনুষ্ঠিত  যশোরে সমরাস্ত্র প্রদর্শনীতে যবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা সবুজ বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে তরুণদের ‘মিশন গ্রিন বাংলাদেশ’ ডিআইইউ’র ১০ শিক্ষার্থী বহিষ্কারের প্রতিবাদে নোবিপ্রবিতে মানববন্ধন  স্বাধীনতা দিবসে ইবির খালেদা জিয়া হলে আলোচনা সভা ও দোয়া   রবির কুড়িগ্রাম জেলা শিক্ষার্থী কল্যাণ সমিতির দায়িত্বে জ্বীম-মনির নানা আনুষ্ঠানিকতায় যবিপ্রবিতে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত রবির বগুড়া জেলা শিক্ষার্থী কল্যাণ সমিতির দায়িত্বে সোয়েব-সমুদ্র রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন  স্বাধীনতাকে নিয়ে ববি শিক্ষার্থীদের ভাবনা রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগার্ডকে স্থানীয় যুবকের মারধর  ববিতে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত চকরিয়ার মালুমঘাটে ইফতারের পূর্বে যুবককে তুলে নিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা যবিপ্রবির তীর্থ কর্তৃক আয়োজিত ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

চকরিয়ায় এক কেজি আলুর দামে একটি লেবু!

মোঃ কামাল উদ্দিন, কক্সবাজার প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩০১ ০০০ বার

রোজার তৃতীয় দিনে চকরিয়া পৌরশহরের পুরাতন কাঁচাবাজার এলাকায় ইফতারির আগে লেবু কেনার জন্য দরদাম করছিলেন আকবর সাহেব। বড় আকারে এলাচি লেবুর দরদাম করছিলেন তিনি। বিক্রেতা চটজলদি বলে দেন এক দাম ২১০ টাকা ডজন। দুই ডজন নেবেন শুনে বিক্রেতা কিছুটা নমনীয় হলেন। ৪০০ টাকায় বিক্রি করলেন দুই ডজন লেবু। তাতে প্রতিটি লেবুর দাম পড়েছে ১৬ টাকা ৬৬ পয়সা। তবে এক ডজন নিলে সে ক্ষেত্রে প্রতিটির দাম সাড়ে ১৭ টাকা।লেবু ব্যাগে ভরার সময় আকবর সাহেব বলেন, মাত্রাতিরিক্ত গরমে ইফতারির মেন্যুতে লেবুর শরবত চান পরিবারের সবাই। এ জন্য দাম বেশি হলেও লেবু নিতেই হলো। কয়েক দিন আগেও লেবুর দাম এত বেশি ছিল না। রোজা আসাতেই হঠাৎ দাম বেড়ে গেল। আকবর সাহেবের কাছে ২০০ টাকা ডজন দরে লেবু বিক্রি করেও অসন্তুষ্ট বিক্রেতা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, যে দামে আমি লেবু কিনেছি তাতে ২০০ টাকায় ডজন বিক্রি করেও খুব বেশি লাভ হচ্ছে না। এদিকে চকরিয়া পৌরশহরের বিভিন্ন এলাকার খুচরা বাজারে গতকাল মঙ্গলবার বড় আকারের এক হালি এলাচি লেবু বিক্রি হয়েছে ৭০ টাকায়। সেই হিসাবে একটা লেবুর দাম ১৭ দশমিক ৫০ টাকা। এই টাকায় অনায়াসেই যেকোনো ক্রেতা এক কেজি আলু কিনতে পারবেন। কারণ, চকরিয়ার খুচরা বাজারে প্রতি কেজি আলু এখন বিক্রি হচ্ছে ১৬ থেকে ১৮ টাকায়। সরেজমিনে চকরিয়া পৌরশহরের পুরাতন কাঁচা বাজার, ভেন্ডিবাজার, মৌলভীরকুম, ভাঙ্গারমুখ, মগবাজার ও থানা সেন্টারস্থ কাঁচা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, আকারভেদে খুচরা বাজারে এলাচি লেবুর হালি ৪০, ৫০ ও ৭০ টাকা। পাইকারি দামও প্রায় একই। শহীদ আবদুল হামিদ পৌর বাসটার্মিনাল সংলগ্ন কাঁচা তরকারির বাজারে পাইকারি বিক্রেতারাও প্রতি হালি এলাচি লেবু বিক্রি করছেন সর্বোচ্চ ৬০ টাকায়। তবে মানভেদে ৩০ টাকা হালিতেও লেবু বিক্রি হচ্ছে এ বাজারে। এলাচি লেবুর বাইরে বাজারে সাধারণত কলম্বো, কাগজি ও লামা-আলীকদমের বিচিহীন লেবু পাওয়া যায়। তবে বাজারে এখন এলাচি লেবুর সরবরাহই বেশি। সুগন্ধি লেবু হিসেবে খ্যাত কলম্বো লেবুর সরবরাহও মন্দ নয়। এক হালি লেবুর দাম ৫০ টাকা, অর্থাৎ প্রতিটির দাম সাড়ে ১২ টাকা। পৌর কিচেন মার্কেটের পাইকারি লেবু ব্যবসায়ী ফরিদ আহমেদ বলেন, ‘লেবুর দাম এক সপ্তাহের ব্যবধানে বেশ বেড়েছে। বিশেষ করে রোজা শুরুর পর এ দাম হু হু করে বেড়ে গেছে। কারণ, বাজারে চাহিদা বেশি, জোগান কম। এক সপ্তাহ আগেও আমরা যে লেবু প্রতি বস্তা ৩-৪ হাজার টাকায় কিনেছি, এখন তা ৮-১০ হাজার টাকায় কিনতে হচ্ছে। কিছুদিনের মধ্য দাম কমে যাবে বলে মনে করেন ফরিদ আহমেদ। তিনি বলেন, ‘রোজার শুরুতে দাম একটু বেশি থাকে। এটা মূলত সরবরাহের ঘাটতির কারণে হয়। আমরা যে অনেক লাভ করছি এমন না। উৎপাদক পর্যায়েই এখন দাম বাড়তি।’এদিকে বিভিন্ন আড়তের ২ টাকার দামের লেবু হাতবদলেই খুচরা পর্যায়ে গিয়ে বিক্রি হচ্ছে ৮ থেকে ১০ টাকায়। চকরিয়ায় এসে সেই লেবুর দাম আরও বেড়ে যাচ্ছে। চকরিয়া ও পার্শ্ববর্তী কয়েকটি উপজেলার মানুষের লেবুর চাহিদা মেটায় পার্বত্য বান্দরবানের লামা, আলীকদমের লেবু চাষীরা। পাহাড়ি এলাকা হওয়ায় এসব এলাকায় লেবু চাষের উপযোগী। তবে এখন সমতলেও লেবুর ভালো ফলন হয়। তবুও রমজানে লেবুর চাহিদা ব্যাপক হওয়ায় মূল্যের লাগাম টেনে ধরে রাখা যাচ্ছে না।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..