শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ১০:০৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
“পহেলা বৈশাখ ও সাম্প্রদায়িক বিতর্ক “ ঈশ্বরদীর নওদাপাড়ায় ৪র্থ বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত ঈদের শুভেচ্ছা জানালো রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি সহস্রাধিক সাইটেশনের মাইলফলক স্পর্শ করলেন রবীন্দ্র উপাচার্য  ইদের পরেই বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কমিটি হবে: শেখ ইনান প্রথম বর্ষে ভর্তিপরীক্ষা বিষয়ে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত মৌলবাদ জঙ্গিবাদ মূলোৎপাটন ও বুয়েটে ছাত্র রাজনীতির দাবিতে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের মানববন্ধন নোবিপ্রবির সঙ্গে যুক্তরাজ্যের নটিংহাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর যবিপ্রবিতে পিএইচডি সেমিনার ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে সুশাসনের নিমিত্ত অংশীজনের সভা অনুষ্ঠিত  যশোরে সমরাস্ত্র প্রদর্শনীতে যবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা সবুজ বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে তরুণদের ‘মিশন গ্রিন বাংলাদেশ’ ডিআইইউ’র ১০ শিক্ষার্থী বহিষ্কারের প্রতিবাদে নোবিপ্রবিতে মানববন্ধন  স্বাধীনতা দিবসে ইবির খালেদা জিয়া হলে আলোচনা সভা ও দোয়া   রবির কুড়িগ্রাম জেলা শিক্ষার্থী কল্যাণ সমিতির দায়িত্বে জ্বীম-মনির নানা আনুষ্ঠানিকতায় যবিপ্রবিতে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত রবির বগুড়া জেলা শিক্ষার্থী কল্যাণ সমিতির দায়িত্বে সোয়েব-সমুদ্র রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন  স্বাধীনতাকে নিয়ে ববি শিক্ষার্থীদের ভাবনা রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগার্ডকে স্থানীয় যুবকের মারধর  ববিতে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত চকরিয়ার মালুমঘাটে ইফতারের পূর্বে যুবককে তুলে নিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যা যবিপ্রবির তীর্থ কর্তৃক আয়োজিত ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত বগুড়া এসোসিয়েশনের দোয়া মাহফিল ও বিদায়ী সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত  হকৃবিতে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করলেন ডা. রয়েল

চিরিংগা হাইওয়ে থানার ইনচার্জের বেপরোয়া টোকেন বাণিজ্য; মাসিক চাঁদা আদায় লক্ষ টাকা

কক্সবাজার প্রতিনিধি :
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৩ মার্চ, ২০২৪
  • ২৩ ০০০ বার

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার চিরিংগা হাইওয়ে থানা পুলিশের ইনচার্জ মাহবুবুল হক ভূইয়া’র যোগদানের পর থেকে মহাসড়কে চলাচলরত বিভিন্ন পরিবহন থেকে বেপরোয়া টোকেন বাণিজ্য। টোকেনবিহীন গাড়ি রাস্তায় পেলেই আটক করে হাইওয়ে থানায় নিয়ে সন্ধ্যার পর মোটা অঙ্কের উৎকোচের বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। চালক ও শ্রমিকদের এমন অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিন অনুসন্ধান চালান সাংবাদিকরা। পরে এ অনুসন্ধানে চালক ও শ্রমিকের কথার সাথে সত্যতা খুঁজে পাওয়া যায়। অনুসন্ধানে জানা যায়, চকরিয়ার চিরিংগা স্টেশনস্থ বিভিন্ন পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের কর্তা ব্যক্তিদের মাধ্যমে একধরনের জলছাপ কাগজে মাসের নাম ও সাল উল্লেখ করে দেওয়া হয় টোকেন। এসব প্রতিটি টোকেনের মূল্য নেওয়া হয় গাড়িভেদে ৪০০ থেকে ১০০০ টাকা করে। যা প্রতিমাসেই বহন করে আসছে বলে জানিয়েছেন চালকরা। প্রাথমিকভাবে মাসের ১-২ তারিখের মধ্যে টোকেনগুলো শ্রমিক সংগঠনের কর্তাব্যক্তি ও অর্ধডজনের অধিক দালালের মাধ্যমে চালকদের কাছে সরবরাহ করা হলেও ৫-১০ তারিখের মধ্যে শুরু হয় এসব টোকেনের টাকা উত্তোলন। এতে কেউ এসব টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে চিরিংগা হাইওয়ে পুলিশ গাড়ি ধরে নেওয়াসহ বিভিন্নভাবে দেওয়া হয় হুমকিধামকি। ডাম্পার ট্রাক চালক খোকন নামের এক ব্যক্তি জানান, টোকেনের জন্য মাসিক মাসোহারা হিসেবে গাড়ি প্রতি দেওয়া হয় ১০০০টাকা করে। জাহেদুল ইসলাম নামের এক সিএনজি চালক সাংবাদিকদের জানান, প্রতিমাসে ৪০০ টাকা করে টোকেনের টাকা দিয়েও অনেক সময় মেলেনা তাদের নিস্তার। মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে গাড়ি ধরে নিয়ে গিয়ে দেওয়া হয় মামলা। আর এসব মামলার টাকা অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে জমা দেওয়ার পরেও গাড়ি ছাড়তে ফের আলাদাভাবে টাকা দাবি করে তারা। তাদের এমন অমানবিক আচরণে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে চালক ও শ্রমিকরা। অন্যদিকে দেলোয়ার হোসেন নামের আরেক সিএনজি চালক বলেন, অন্য ১০ জনের মতো সে ও প্রতিমাসে ৪০০ টাকা দিয়ে টোকেন ক্রয় করেন। কিন্তু এরপরেও নিস্তার মেলেনি তার। গত ফেব্রুয়ারী মাসের ২৭ তারিখ মঙ্গলবার দুপুরের দিকে চকরিয়া শহীদ আব্দুল হামিদ পৌর বাস টার্মিনাল এলাকা থেকে আটক করে হাইওয়ে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। এরপর দেওয়া হয় ৭ হাজার ৫০০টাকার জরিমানা আদায়ের মামলা। মামলা পরবর্তী খোদ ইনচার্জ রিসিট নিয়ে অনলাইন ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা জমা দিলেই ছেড়ে দিবেন বলে জানান বলে দাবী করেন সে। কিন্তু, আটকের গত ৬ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরও তাকে গাড়ি দিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়ে বার বার হাইওয়ে থানায় নিয়ে গিয়ে গাড়ি না দিয়ে ফেরত পাঠিয়েছেন বলে জানান এ চালক। জমির উদ্দিন নামের আরেক সিএনজি চালক জানান, প্রতিমাসে টোকেন বাবদ ৪০০ টাকা করে মাসোহারা দেওয়ার পরেও যদি সড়কে গাড়ি চালিয়ে হালাল ইনকাম করতে না পারি তাহলে বউ বাচ্চা নিয়ে আমাদের মরণ ছাড়া আর কোন ধরনের উপায় নেই। অন্যদিকে, চালক শ্রমিকদের এমন অভিযোগের ভিত্তিতে চিরিংগা হাইওয়ে থানার ইনচার্জ মাহাবুবুল হক ভূইয়ার সাথে সরাসরি যোগাযোগ করা হলে তিনি এসব অভিযোগ অস্বীকার করেন। এবিষয়ে, কুমিল্লা হাইওয়ে রিজিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জিলানীর কাছে জানতে চাইলে তিনি প্রতিবেদককে বলেন, টোকেন আছে এমন কোন গাড়ি সড়কে পেলে সাথে সাথে আটক করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এবিষয়টি কয়েকদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের সুবাদে আমিও অবগত হয়েছি। এ ব্যাপারে তদন্ত চলমান রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..