সোমবার, ০৪ জুলাই ২০২২, ০৫:৪৮ পূর্বাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
ইউসিবি পাবলিক পার্লামেন্ট বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন নোবিপ্রবি পানছড়িতে মহিলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত সারাদেশে শিক্ষক লাঞ্ছনার প্রতিবাদে নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির মানববন্ধন অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে কারিগরি শিক্ষা – শিক্ষা উপমন্ত্রী ভেড়ামারায় দানেজ হত্যা মামলার বাদী পক্ষের সাংবাদিক সম্মেলন সিলেট ও সুনামগঞ্জের ৫ হাজার বন্যার্ত পেলো কেসি ফাউন্ডেশনের ত্রাণ গ্রীন ভয়েস বশেমুরবিপ্রবি শাখার সভাপতি রাজ্জাক, সম্পাদক লিসন পদ্মা সেতুর উদ্বোধনীতে বশেমুরবিপ্রবিতে ছাত্রলীগ নেতা চন্দ্রনাথের আনন্দ মিছিল মুরাদিয়াতে জাঁকজমকপূর্ণ ভাবে ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত পাবনা জেলা ছাত্রকল্যান সমিতির নেতৃত্বে মামুন-আরিয়ান আলো ছড়াচ্ছে রাজাখালী উন্মুক্ত পাঠাগার চকরিয়ায় অবৈধ করাতকলে উজাড় হচ্ছে সংরক্ষিত বনাঞ্চল, নীরব বনবিভাগ ও প্রশাসন পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে পাবিপ্রবি ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল বানভাসি মানুষের পাশে; ছাত্র ইউনিয়ন চকরিয়ায় আলোচিত দিনমজুর আমির হোছন হত্যাকান্ডের প্রধান আসামি রহমান গ্রেফতার পদ্মা সেতুর উদ্বোধন উপলক্ষে বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষক সমিতির আনন্দ র‍্যালি  চকরিয়ায় ভুয়া ডাক্তারের ছড়াছড়ি নোবিপ্রবি’তে STEMEd ক্লাবের আয়োজনে ৩ দিন ব্যাপী ইনডোর গেমস শুরু বশেমুরবিপ্রবির সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আবারো আন্দোলনে সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থীরা কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালিত ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে বদলি হলেন সুদক্ষ জেলা শিক্ষা অফিসার জায়েদুর রহমান ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন ; নৌকা বিরোধীরাই হলেন সভাপতি ও সম্পাদক বন্যা কবলিত অসহায় মানুষের পাশে ডিআইইউর সকল শিক্ষার্থীবৃন্দ   চকরিয়ায় ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলার অভিযোগ সিলেট ও সুনামগঞ্জকে দুর্যোগপূর্ণ এলাকা ঘোষণা এবং ত্রাণ সহায়তার দাবিতে বশেমুরবিপ্রবিতে মানববন্ধন

ফুলবাড়ীতে দুই সতীনের ‘ঘরের লড়াই’ এবার নির্বাচনি ময়দানে

বাংলাদেশ সারাবেলা বিশেষ রিপোর্ট
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২১
  • ১৪৬ ০০০ বার

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে একই ব্যক্তির দুই স্ত্রী পরস্পরের বিরুদ্ধে প্রার্থী হওয়ায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এ নিয়ে ভোটারদের মধ্যে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। স্বামী এক স্ত্রীকে সমর্থন দেওয়ায় এবং অপর স্ত্রী প্রার্থীতা প্রত্যাহার না করায় ‘ঘরের লড়াই’ এবার নেমে এসেছে নির্বাচনি ময়দানে। ওই এলাকার ভোটাররাও উৎসুখ হয়ে আছে দুই সতীনের ভোটের কাঙ্ক্ষিতে ফলাফল নিয়ে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ফুলবাড়ী সদর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৭, ৮ ও ৯ নম্বর ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী সদস্য নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন ওই এলাকার চন্দ্রখানা বুদারবান্নি গ্রামের ফজলু কসাইয়ের দুই স্ত্রী আঙ্গুর বেগম ও জাহানারা বেগম। স্বামী ফজলু কসাই আঙ্গুর বেগমের পক্ষ নিলেও তার অপর স্ত্রী জাহানারা বেগম ভোটযুদ্ধ থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করতে রাজী নন। ফলে এক পরিবারে দুই বউ প্রার্থী হওয়া এলাকাজুড়ে রসালো আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

এ ব্যাপারে ফজলু কসাই জানান, আমার তিন স্ত্রীর মধ্যে আঙ্গুর বেগম প্রথম স্ত্রী, নাজমা বেগম দ্বিতীয় স্ত্রী ও জাহানারা বেগম তৃতীয় স্ত্রী। প্রথম ও দ্বিতীয় স্ত্রী আমার সাথে রয়েছে। তৃতীয় স্ত্রী জাহানারা বেগমকে আলাদা বাড়ি করে দিয়েছি। সেখানেই অবস্থান করছে সে। এবারের নির্বাচনে পাড়া-প্রতিবেশী ও আত্মীয়-স্বজনদের সমর্থনে প্রথম স্ত্রী আঙ্গুর বেগম সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। কিন্তু আমার তৃতীয় স্ত্রী জাহানারা বেগম আমাদের বাঁধা-নিষেধ সত্বেও সে একাই নির্বাচনি প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে জাহানারা বেগম জানান, ‘২০১৭ সালে আমি স্বামীর সমর্থনে প্রথম নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলাম। সেবার আমি দ্বিতীয় হয়েছিলাম। আমার জনপ্রিয়তার ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার সতীন আঙ্গুর বেগম স্বামীকে ফুসলিয়ে প্রার্থী হয়েছে। নির্বাচন থেকে সড়ে দাঁড়াতে আমাকে চাপ দেওয়া হচ্ছে। তাতে আমি ভীত নই। জনগণ আমার সাথে রয়েছে। আমিই শেষ হাসি হাসবো।’

এ দিকে, গত ১২ নভেম্বর প্রতীক বরাদ্দে আঙ্গুর বেগম পেয়েছেন কলম আর জাহানারা বেগম পেয়েছেন তালগাছ প্রতীক। এ ছাড়াও তাদের সাথে নুরী বেগম, আনজুমা বেগম ও আঙুর বেগম নামে অপর একজনসহ মোট ৫ জন এবার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অন্যদিকে, প্রতীক পাওয়ার পর মাঠ দাপিয়ে বেড়াচ্ছে দুই সতীন। উৎসাহ নিয়ে সমর্থকরাও ভোটারদের দ্বারস্থ হচ্ছেন।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, তৃতীয় বিয়ের পর এমনিতে ফজলু কসাইয়ের পরিবারে অশান্তি নেমে এসেছে। এখন দুই সতীন পরস্পরের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় বিপাকে পড়েছে সে। সংসারে বেড়েছে ঝগড়া-বিবাদ। অনেক বুঝিয়েও জাহানারা বেগমের প্রার্থীতা প্রত্যাহার করা যায়নি। এখন দুই সতীন পুরো ফুলবাড়ী উপজেলায় নির্বাচনি আলোচনা-সমালোচনার খোরাক হয়েছেন।

আগামী ২৮ নভেম্বরের নির্বাচনে এই দুই গৃহবধূ পরস্পরের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। এখন অপেক্ষা ফলাফল কার পক্ষে যায়। কে নিয়ে আসতে পারে বিজয়ের তিলক।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..