শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ০৭:১৫ অপরাহ্ন
নোটিশ ::
বাংলাদেশ সারাবেলা ডটকমে আপনাদের স্বাগতম। সারাদেশের জেলা,উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয়ে  প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে, আগ্রহীরা যোগাযোগ করুন - ০১৭৯৭-২৮১৪২৮ নাম্বারে
সংবাদ শিরোনাম ::
আটঘরিয়ায় চতুর্থ কাব ক্যাম্পুরীর উদ্বোধন প্রথমবারের মতো সংসদে বক্তব্য রাখলেন সোলায়মান সেলিম বায়োমেট্রিক হাজিরা মেশিন থাকলেও নেই শিক্ষার্থীদের হাজিরা ভেটেরিনারি অনুষদে সেশনজট মোকাবিলাই হবে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ- নবনিযুক্ত ডিন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের প্রথম কমিটির নেতৃত্বে ডলফিন-তুহিন  শহীদ আব্দুল খালেক উচ্চ বিদ্যালয়ে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ হকৃবি’তে যথাযথ মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত যবিপ্রবিতে নওগাঁ জেলা অ্যাসোসিয়েশনের বার্ষিক মিলনমেলা কয়রাবাড়ি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত ববিতে যথাযথ মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপিত ভাষা আন্দোলন বাঙালি জাতীয়তাবাদের ভিত্তি রচনা করেছিল– রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য   চকরিয়ায় শতকোটি টাকা মূল্যের বনভূমি দখল করে আ.লীগ নেতার স্থাপনা নির্মাণ; নিরব সংশ্লিষ্ট বনবিভাগ নড়াইলের মেধাবী শিক্ষার্থী রাকিবুলের পাশে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগ কয়রাবাড়ি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতনের ঘটনায় উত্তাল যবিপ্রবি, উপাচার্য কে ঘেরাও  যবিপ্রবির কিশোরগঞ্জ জেলা আসোসিয়েশন এর নেতৃত্বে রাহাত ও আবিদ যবিপ্রবি শিক্ষার্থীকে নির্যাতন, অভিযোগের তীর ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে সহায়তা তহবিল গঠন করে দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে স্কুল ড্রেস বিতরণ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে চিত্রাংকন এবং রচনা প্রতিযোগিতার আয়োজন শীতবস্ত্র নিয়ে ছিন্নমুল মানুষদের পাশে পাবিপ্রবি ছাত্রলীগ গণিত ও বিজ্ঞান বিষয়ের উপর আন্তঃ উপজেলা (আটঘরিয়া) প্রতিযোগিতা মূলক মূল্যায়ন অনুষ্ঠিত কয়রাবাড়ি বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি বর্ণাঢ্য আয়োজনে যবিপ্রবিতে সরস্বতী পূজা উদযাপিত রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষ প্রেম বিতর্ক অনুষ্ঠিত  ঋতুরাজ বসন্তকে স্বাগত জানিয়েছে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়

সংস্কারের পর বছর না পেরোতেই কুবির মুক্তমঞ্চে ফের ফাটল

মুরাদুল মুস্তাকিম,কুবি প্রতিনিধি
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২০ জানুয়ারী, ২০২১
  • ২৩৩ ০০০ বার

সংস্কারের পর যেতে না যেতেই ফের ফাটল দেখা দিয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) মুক্তমঞ্চে। স্থাপনাটির পশ্চিম পাশের উপর দিকে প্রায় তিন ফুট দীর্ঘ একটি ফাটল সৃষ্টি হয়েছে। এর আগে ২০২০ সালের শুরুতে স্থাপনাটি কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তরের আগেই দেখা দিয়েছিল বিশাল ফাটল। এ নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হলে কোনরকম সিমেন্টের প্রলেপ দিয়ে ঢেকে দেয়া হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৯ সালের মাঝামাঝি সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মোহাম্মদ সোহরাব উদ্দীনকে প্রধান করে সৌন্দর্যবর্ধন প্রকল্পের জন্য সাত সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠিত হয়। যে প্রকল্পের মোট বাজেট ছিল ৫৩ লাখ টাকা। যার কাজ পায় সুমাইয়া এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এতে মুক্তমঞ্চের কাজ ছিল অন্যতম এবং সাথে ছিলো ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সৌন্দর্যবর্ধন কাজ।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, মুক্তমঞ্চ নির্মাণের সময় ভবন নির্মাণের কোনো নিয়ম মানা হয়নি। পাহাড় কিংবা উঁচু স্থানের ওপর কোনো স্থাপনা নির্মাণ করতে হলে মাটির নিচ থেকে ন্যূনতম ৩০ ইঞ্চি বিম প্রস্তুত করতে হয়। কিন্তু এখানে মানা হয়নি এসব এর কোন নিয়ম।

জানা গেছে, এত বড় প্রকল্প বাস্তবায়িত হয় কোনো ধরনের পূর্বপ্রস্তুতি ছাড়াই। এমনকি ছিল না নির্দিষ্ট কোনো নকশা। ফলে বিশৃঙ্খলভাবে কাজ সম্পন্ন হয়েছিল। কাজের মান শতভাগ নিশ্চিত হয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের সদুত্তর দিতে পারেননি সংশ্লিষ্ট প্রকৌশল দপ্তরের কর্তা ব্যক্তিরা ও প্রকল্পের আহ্বায়ক।

বিশ্ববিদ্যালয় সাংস্কৃতিক সংগঠন অনুপ্রাস কন্ঠচর্চা কেন্দ্রের সভাপতি সানজিদা ইসলাম বলেন, যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যই অডিটোরিয়াম এবং মুক্তমঞ্চ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্ববিদ্যালয়ে সাংস্কৃতিক পরিবেশ বজায় রাখতে মুক্তমঞ্চের বিকল্প নেই, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিষ্ঠার পর থেকে এখন পর্যন্ত অডিটোরিয়াম নির্মাণ হয় নি। মুক্তমঞ্চ নির্মাণ হওয়ার পর তা পূর্ণাঙ্গ রুপ পাওয়ার আগেই বিভিন্ন সমস্যা সৃষ্টি হয়, এবং মেরামত করা হয়, এখন পুনরায় আবার ফাটল নিঃসন্দেহে চিন্তার বিষয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক পরিবেশ বজায় রাখতে মুক্তমঞ্চের নির্মাণের ত্রুটি গুলো দ্রুত নিরসন করা দরকার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এস এম শহিদুল হাসান বলেন, ঠিকাদার স্ট্রাকচার করার সময় ফাটল না হওয়ার জন্য একটি সাপোর্টার হিসাবে একটি বিম দিয়েছিল। কিন্তু সৌন্দর্যবর্ধনের কমিটির কথা অনুযায়ী সাপোর্টার ভেঙ্গে ফেলা হয়েছিল। যার ফলে এই জায়গা ফাটল দেখা দিয়েছে। যদি করার আগে সৌন্দর্যবর্ধন কমিটি বলত সাপোর্টার দেওয়া যাবে না, তাহলে ঠিকাদার অন্য সিস্টেম স্ট্রাকচার তৈরি করত। কিন্তু কাজ শেষ হওয়ার পর বললে তো সব কিছু ঠিক হবে না।

সৌন্দর্যবর্ধনের কমিটি অধ্যাপক সোহরাব উদ্দীন বলেন, মুক্তমঞ্চে কাজ করার সময় কোন জায়গা বিম হবে, কোথায় ব্রিকস হবে সেটা আমি শিক্ষক হয়ে কিভাবে জানব। কিভাবে করলে ফাটল হবে, কোথায় বিম বা পিলার হবে সেইগুলো জানার কথা প্রকৌশলী দপ্তর।

বিশ্ববিদ্যালয়ে রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মোঃ আবু তাহের বলেন, এই মুক্তমঞ্চ হস্তান্তর করার সময় একবার মেরামত করা হয়েছিল। যেহেতু আবার ফাটল দেখা দিয়েছে সেটা আমরা সৌন্দর্যবর্ধন কমিটির সাথে কথা বলব। তবে আমার জানা মতে কন্টাক্টরকে এখনও তার জামানত টাকা ফেরত দেয়া হয় নি। দরকার হলে আমরা আবার মেরামত করব যাতে আর ফাটল না হয়। যদি বড় কোন সমস্যা হয়ে থাকে তাহলে সেটা আমরা যত দ্রুত সম্ভব সমাধান করব।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..